টিউশনি করার কৌশল

আমি হাজির হলাম ভিন্ন ধর্মী একটা কৌশল নিয়ে। টিউশনি, প্রায় সকল মানুষই নামটির সাথে পরিচিত। আপনি কি টিউশনি করতে চান? আপনি কি টিউশনি পাচ্ছেন না? তাহলে আমি আজ এসেছি আপনাদের কাছে টিউশনি পাওয়ার গোপন কৌশল নিয়ে।

 

টিউশনি করার কৌশল

আমাদের সমাজে অনেকেরই উদ্দেশ্য থাকে টিউশনি করা। কারণ পড়াশুনার পাশাপাশি সবাই চায় স্বল্প পরিশ্রমে কিছু টাকা ইনকাম করতে। টিউশনি এমন একটা বিষয়, যার নিজের জ্ঞানের পরিধি বাড়ানোর পাশাপাশি কিছু বাড়তি আয়ের উৎস হিসেবে দাঁড়িয়েছে। অনেকেরই ফ্যামিলির অবস্থা খারাপ থাকতে পারে। যাদের পড়াশুনার খরচ ফ্যামিলি ঠিক ভাবে দিতে পারে না।

 

অন্যদিকে অনেকে শহরে পড়াশুনার জন্য গেলে একটু বেশি টাকার দরকার হয়ে পড়ে। তখন পড়াশুনার পাশাপাশি টিউশনি ছাড়া অন্য কোন ফিজিক্যালি কাজ করা সম্ভব হয়ে উঠে না।

 

কিন্তু একটা নতুন শহরে যেয়ে টিউশনি পাওয়া আসলেই অনেক কষ্টকর। কারণ সেখানে আপনাকে কেউ চেনে না। আপনার কোয়ালিফিকেশনও জানে না।

 

এখন নিজেকে গার্ডিয়ানদের কাছে চেনাতে বা তাদের কোয়ালিফিকেশন জানানোর জন্য বাড়ি বাড়ি যাওয়া তো সম্ভব না। তাছাড়া আপনার যতই ভাল কোয়ালিফিকেশন থাকুক না কেন, যেহেতু আপনি অপরিচিত সেহেতু আপনাকে কেউ নিতে চাইবে না হোম টিউটর হিসাবে।

 

এক্ষেত্রে আপনি কি করতে পারেন। আমি আপনাকে কিছু পদ্ধতি বলে দেবো, যার মাধ্যমে আপনি ১০০% টিউশনি পাবেন।

 

প্রথমত, আপনার আশে পাশে যেসব বড় ভাই ব্রাদার আছে, তাদের হেল্প নিতে পারেন। কারণ তারা যদি কেউ টিউশনি করে থাকে তাহলে তারা আপনাকে টিউশনি খুঁজে দিতে পারে। অনেক বড় ভাই আছে যারা শহরে অনেক দিন আছে বা অনেক দিন ধরে টিউশনি করছে। তাদের সাথে অনেক গার্ডিয়ানদেরই যোগাযোগ থাকে। তাই তারা চাইলে আপনাকে হেল্প করতে পারে।

 

দ্বিতীয়ত, “বাড়ি গিয়ে পড়াতে চাই” নামের একটা ছোট বিজ্ঞাপন একটি কাগজে বানিয়ে সেটা অনেক গুলো ফটোকপি করে আপনার নিজের এলাকায় ও আশে পাশের এলাকায় টাঙিয়ে দিতে পারেন। তবে বিজ্ঞাপনে অবশ্যই আপনার কোয়ালিফিকেশন লিখে দিতে হবে। তাছাড়া আপনি কোন কোন শ্রেণীর স্টুডেন্ট পড়াতে পারবেন সেটাও লিখে দিতে হবে। আর আপনার পার্সোনাল মোবাইল নাম্বার দিতে ভুলবেন না সেখানে।

 

এর ফলে আপনার ওই বিজ্ঞাপন দেখে অনেক গার্ডিয়ানই আপনাকে নক করতে পারে তাদের ছেলে-মেয়ে পড়ানোর জন্য। আমার দেখা অনেক বন্ধু আছে যারা এই ভাবে কাগজে বিজ্ঞাপন দিয়ে অনেক টিউশনি পেয়েছে।

 

তৃতীয়ত, এখন অনলাইনে অনেক ওয়েবসাইট আছে, যেগুলো শুধু মাত্র টিউশনি নেওয়া ও দেওয়ার জন্য তৈরি করা। অর্থাৎ এই সকল ওয়সবসাইটে আপনি একটা অ্যাকাউন্ট খুলে সেখানে আপনার কোয়ালিফিকেশন অ্যাড করে কোন কোন শ্রেণীর স্টডেন্ট আপনি পড়াতে চান সেগুলো দিয়ে একটা বিজ্ঞাপন দিতে পারবেন। আর এটা করা যাবে দুইভাবে। একটা হল পেইড ভাবে, অন্যটি আনপেইড ভাবে।

 

পেইড ভাবে বিজ্ঞাপন দিতে হলে আপনাকে ঐ ওয়েবসাইটে কিছু টাকা ইনভেস্ট করতে হবে। যা খুবই সামান্য। তাহলে ঐ সাইটের অ্যাডমিনরা আপনাকে টিউশনি পাইয়ে দিতে হেল্প করবে। অন্যদিকে আপনি ফ্রিতে মানে আনপেইড ভাবেও বিজ্ঞাপন দিতে পারেন। এর জন্য আপনার কোন খরচ হবে না।

 

তাছাড়া এখানে আপনি অনেক গার্ডিয়ানদেরও বিজ্ঞাপন পাবেন। যারা তাদের ছেলে-মেয়েদের টিচার পাওয়ার জন্যও বিজ্ঞাপন দিয়ে থাকে। আপনি সেই সকল অ্যাড বা বিজ্ঞাপন দেখেও যোগাযোগ করতে পারেন। কারণ গার্ডিয়ানদের সাথে যোগাযোগের নাম্বারসহ কোন শ্রেণীর স্টুডেন্ট পড়াতে হবে সমস্ত ডিটেইলস দেওয়া থাকে সেই বিজ্ঞাপনে।

 

অনলাইনে বিজ্ঞাপন দিলে শুধু আপনার এলাকা নয়, আপনি আপনার খুশিমত এলাকা সিলেক্ট করে টিউশনি পেতে পারেন।

 

টিউশনি পাওয়ার জন্য এর থেকে সহজ কোন মাধ্যম আর নেই। তারপরেও যদি আপনি টিউশনি না পান, তাহলে টিউশনির বিষয় মাথা থেকে ঝেড়ে ফেলে অনলাইনে কিভাবে ঘরে বসে খুব সহজেই টিউশনির থেকেও অনেক গুণ বেশি আয় করা যায় সেই পদ্ধতি অনুসরণ করুন। যে বিষয়ে খুব সুন্দর করে বিস্তারিত দেওয়া আছে আমাদের এই ওয়েবসাইটে।

Leave a Reply